বৃহস্পতিবার  ২৬শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং  |   বৃহস্পতিবার  ১৩ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

এইমাএ পাওয়া

শ্রমিক সংগঠনের অফিস দখলকে কেন্দ্র করে শ্রমিকদের সঙ্গে কাউন্সিলর আলা বাহিনীর দফায় দফায় সংঘর্ষঃ আহত ২৫

আগস্ট ১২, ২০১৬

সংর্ঘষ

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজী এলাকায় কোমল মিনিবাস পরিবহনের শ্রমিক সংগঠনের অফিস দখলকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপের ও শ্রমিকদের সঙ্গে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংর্ঘষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের ২০/২৫ জন আহত হয়েছে। আহতদের বিভিন্ন হসাপাতলে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলো, রুবেল, কালাম, আরসাফ, সাকিব ,লিটন, শাহাদাৎ, সালাউদ্দিন, শাহজালাল, নবী হোসেন, রহম আলী, আঃ সাত্তারের নাম পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষ থানায় অভিযোগ করেছে। এদিকে শ্রমিকদের উপর হামলা ও মামলা হওয়ার কারনে পরিবহন শ্রমিকরা গাড়ি বন্ধ করে বৃহস্পতিবার ধর্মঘট পালন করে। বুধবার রাত সাড়ে ১০ টায় আদমজী কোমল বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে। এনিয়ে আদমজী বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় দুই গ্রুপের মধ্যে বিরাজ করছে উত্তেজনা। যে কোন মুহুর্তে আবারো সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়তে পারে উভয় পক্ষ। সংঘর্ষ এড়াতে আদমজী বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় পুলিশের টহল বৃদ্ধি করা হয়েছে।

জানাগেছে, ঢাকাÑআদমজী সড়কে কোমল মিনিবাস পরিবহনের প্রতিদিন ৬০টি বাস চলাচল করে। দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে শ্রমিক সংগঠনের নতুন কমিটি না হওয়ায় ক্ষোভ বিরাজ করছিল সাধারণ শ্রমিকদের মাঝে। অপর দিকে শ্রমিক সংগঠনের নামে সভাপতি সালাউদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক শাহাজালাল নিজেদের মনমত কমিটির কার্যক্রম পরিচালন করে আসছে বলে অভিযোগ করে সাধারণ শ্রমিকরা। তাদের অভিযোগ এতে করে সাধারণ শ্রমিকদের ন্যাজ্জ অধিকার আদায় হ”েছ না। তাই শ্রমিকরা পুনরায় নির্বাচন দিয়ে নতুন কমিটি করার জন্য বারবার বলার পরে সেদিকে কর্ণপাত করছে না বর্তমান কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। এদিকে মঙ্গলবার কোমল পরিহবনের শ্রমিকরা অফিস নিজেদের দখলে নিলে সালাউদ্দিন ও শাহাজালাল শ্রমিকদের অফিস ছাড়তে হুমকি প্রদান করে। পরবর্তীতে বুধবার রাত সাড়ে ১০ টায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক ও নাসিক ৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলী হোসেন আলা, থানা শ্রমিকলীগের সাধারন সম্পাদক সালাউদ্দিন , কোমল পরিবহনের সাধারন সম্পাদক শাহজালাল, কাউন্সিলরের পিএস মোস্তাফা, আলা বাহিনীর ক্যাডার রাজু, রিপন, আমজাদ, আরিফসহ শ্রমিক নেতা রুবেল ও চান্দুকে অফিস থেকে জোর করে তারিয়ে অফিসটি দখলে নেয় এবং তালা ঝুলিয়ে দেয়। পরে অন্যান্য শ্রমিকরা বাধা দিলে কাউন্সিলর আলার নিদের্শে তার বাহিনী লোটি সোটা ও দেশী অস্ত্র দিয়ে শ্রমিকদের উপর হামলা চালায়। খবর পেয়ে অন্যান্য শ্রমিকরা এগিয়ে এলে কাউন্সিলর আলা বাহিনীর সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘষের্র ঘটনা ঘটে। এতে উভয় গ্রুপের অন্তত ১৫/২০ জন আহত হয়। এ সময় আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়। রাত ১০টা থেকে ৩ টা পর্যন্ত কয়েক দফা ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশ কয়েক বার উভয় গ্রুপকে ধাওয়া দেয়। এদিকে রাতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক ও নাসিক ৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলী হোসেন আলার নিদের্শে থানা শ্রমিকলীগের সভাপতি কোমল পরিবহনের ১০ শ্রমিক নেতার বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছে। যার নং ২৩।

অপর দিকে মামলার খবর পেয়ে সকাল ৬ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত শ্রমিকরা আদমজী কোমল পরিবহনের সকল বাস বন্ধ করে শ্রমিক নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে গাড়ি বন্ধ করে প্রতিবাদ করছে। এসময় তারা কাউন্সিলর আলা ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে। এর আগে দুপুর ১২ টায় কোমল পরিবহনের শ্রমিক নেতা রুবেল বাদি হয়ে কাউন্সিলর আলা বাহিনীর ৮ জনের নাম উল্লেখ ও ১৫-২০ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে থানা লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।

আহত শ্রমিক আবুল কালাম বলেন, কাউন্সিলর আলার নির্দেষে আমাদের উপর হামলা করা হয়েছে। কাউন্সিলর আলা কথায় কথায় সাংসদ শামীম ওসমানের নাম ব্যবহার করে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করছে।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি মুঃ সরাফাত উল্লাহ সংঘর্ষের কথা স্বীকার করে বলেন, শ্রমিক পরিবহনের অফিস দখল করা নিয়ে সংঘর্ষ হয়েছে। উভয় গ্রুপ থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। পুলিশ তদন্ত করে ব্যব¯’া নিবে। সংঘর্ষ ¯’ানে পুলিশের টহল বৃদ্ধি করা হয়েছে।
নারায়নগঞ্জ সংবাদদাতা/১২ই আগস্ট, ২০১৬ ইং