বৃহস্পতিবার  ২৬শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং  |   বৃহস্পতিবার  ১৩ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

এইমাএ পাওয়া

বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুত কেন্দ্র বন্ধ করে দেওয়ার হুশিয়ারী

আগস্ট ৮, ২০১৬

বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুত কেন্দ্র

মোস্তাফিজুর রহমান সুমন/

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রে বাংলাদেশ বিদ্যুত উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি)’র রাজশাহী, রংপুর বিতরণ জোনকে কোম্পানীতে রূপান্তরের প্রতিবাদে কর্মরত শ্রমিক কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐক্য পরিষদের গণ আন্দোলনে উত্তাল হয়ে উঠেছে। আগামী ১৬ আগষ্টের মধ্যে কোম্পানীতে রূপান্তরের চুক্তি বাতিল না হলে একেবারে তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রটি বন্ধ করে দেওয়ার হুশিয়ারী দিয়েছেন আন্দোলনরত শ্রমিক কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐক্য পরিষদ।

আজ (০৮ আগস্ট) সোমবার নতুন কর্মসুচী ঘোষনা করে এই হুশিয়ারি প্রদান করেন ঐক্য পরিষদের আহবায়ক জাতীয় শ্রমিক লীগ-১৯০২ এর সভাপতি জিল্লুর রহমান। এছাড়া প্রতিদিনের ন্যায় দাপ্তরিক কাজ কর্ম বন্ধ রেখে নিয়মিত আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। নতুন আন্দোলন কর্মসূচীর মধ্যে আরো রয়েছে ৮আগষ্ট গেটসভা ও বিক্ষোভ মিছিল, ৯,১০ ও১১ আগষ্ট বিউবো এর সকল স্তরের শ্রমিক কর্মচারী-কর্মকর্তাদের গণছুটি পালন, ১৩ ও ১৪ আগষ্ট গেটসভা ও বিক্ষোভ মিছিল, ১৫ই আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস পালন ও ১৬ই আগষ্ট চুক্তি বাতিল না হলে কঠোর আন্দোলন।

এদিকে কোম্পানীতে রূপান্তরের চুক্তি বাতিলের দাবিতে শ্রমিক কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐক্য পরিষদ কর্মবিরতী দিয়ে আন্দোলনে নামায় অচল হয়ে পড়েছে বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুত কেন্দ্রটির স্বাভাবিক কাজকর্ম। আগামী ১৬ তারিখের মধ্যে দাবী পূরণ না হলে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রটির উৎপাদন বন্ধ করে দিলে অন্ধকারে পড়বে রংপুর ও রাজশাহী বিভাগ। এতে কলকারখানাসহ অচল হয়ে পড়ার আশংখা দেখা দিয়েছে উত্তরাঞ্চলে।

বড়পুকুরিয়া শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি জিল্লুর রহমান বলেন, বিতরণ জোনকে কোম্পানীকরনের মাধ্যমে এই সরকারি প্রতিষ্ঠানটি ধ্বংস হওয়ার পাশাপাশি বেকার হয়ে যাবে বিদ্যুত বিভাগের কয়েক হাজার শ্রমিক কর্মচারী ও কর্মকর্তা। অচল হয়ে পড়বে তাদের জীবন জীবিকা। তাই এই সরকারী প্রতিষ্ঠানটি রক্ষার পাশাপাশি তাদের জীবন জীবিকাকেও রক্ষার জন্য আন্দোলনে নেমেছে শ্রমিক কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। এখানে পিছনে ফিরে যাওয়ার আর উপায় নাই।

তার দাবীর সঙ্গে একাত্মতা ঘোষনা করে বড়পুকুরিয়া অফিসার্স ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সহকারী প্রকৌশলী আতিয়ার রহমান বলেন, এই আন্দোলন বিদ্যুত শ্রমিক কর্মচারীদের জীবন রক্ষার আন্দোলন এবং সরকারের এই মহৎ প্রতিষ্ঠানটিকে রক্ষা করার আন্দোলন। তাই এখান থেকে ফিরে যাওয়ার আর কোন সুযোগ নাই।

এ সময় কর্মকর্তা-কর্মচারিদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন তাপ বিদ্যুত কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী(বয়লার) ইলিয়াস রহমান, নির্বাহী প্রকৌশলী মাহমুদ হাসান(টারবাইন), নির্বাহী প্রকৌশলী কামরুজ্জামান, নির্বাহী প্রকৌশলী হাসান মাহামুদ, নির্বাহী প্রকৌশলী আবু রায়হান, শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আকবর আলী প্রমূখ।

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি/ ৮ই আগস্ট, ২০১৬ ইং