শুক্রবার  ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং  |   শুক্রবার  ৭ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

এইমাএ পাওয়া

ফরিদপুরে আনসারউল্লাহ বাংলা টিমের ৪ সদস্য আটক

আগস্ট ২৭, ২০১৬

আনসারউল্লাহ বাংলা টিম

বিপ্লব কুমার দাস (শাওন)/ফরিদপুর প্রতিনিধি/ 

ফরিদপুরে আনসারউল্লাহ বাংলা টিমের ৪ সক্রিয় সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।আটককৃতরা হলেন-নাহিদ মোল্লা (২০), ফরিদ মৃধা (৩২), মো শহিদুল ইসলাম (৩৫) ও মহসীন মোল্লা (৩৫)।

ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো কামরুজ্জামান জানান, শুক্রবার (২৬ আগস্ট) রাত ৯টা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ফরিদপুরের সদরপুর, ভাঙ্গা ও চরভদ্রাসন-এই তিন উপজেলায় অভিযান চালিয়ে আনসারউল্লাহ বাংলা টিমের ৪ সক্রিয় সদস্যকে আটক করা হয়েছে।

তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ জিহাদি বই, অস্ত্র, গুলি, বোমা ও বোমা তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে পুলিশ।শনিবার দুপুরে ফরিদপুর পুলিশ সুপার কার্যালয়ে ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার মো জামিল হাসান জানান, ময়মনসিংহের একটি মামলায় এজাহারভুক্ত আসামি নাহিদ মোল্লাকে (২০) শুক্রবার (২৬ আগস্ট) রাতে ভাঙ্গা উপজেলার লক্ষীপুর গ্রাম থেকে আটক করে জিঙ্গাসাবাদ করলে সে নিজেকে আনসারউল্লাহ বাংলা টিমের সক্রিয় সদস্য বলে জানায়।

পরে তার দেওয়া তথ্যমতে, ফরিদপুর অঞ্চলের দলনেতা ফরিদ মৃধাকে (৩২) গত শুক্রবার রাতেই সদরপুর উপজেলার দক্ষিণ আলমডাঙ্গা নিজবাড়ি থেকে আটক করা হয়। তার পিতার নাম নুরু মৃধা। এ সময় তার সাথে থাকা তার সহকারী মো শহিদুল ইসলাম (৩৫) ও মহসীন মোল্লাকে (৩৫) আটক করা হয়। শহিদুল ইসলাম চরভদ্রাসন উপজেলার মটকচর গ্রামের মৃত আব্দুল কাদের মাতুব্বরের ছেলে। মহসীন মোল্ল সদরপুর উপজেলার চরবৃষ্ণপুর গ্রামের দেলোয়ার হোসেন মোল্লার ছেলে। তাদের কাছ থেকে দুটি নাইন এমএম পিস্তল, একটি ওয়ান শুটারগান, ৫ রাউন্ড গুলি, ২২টি হাতবোমা, ডিভাইসযুক্ত চশমা, প্রচুর জিহাদি বই ও বোমা তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ সুপার বলেন, আটককৃতরা জানিয়েছেতারা এ জেলায় হামলা না করে দেশের বিভিন্ন জায়গায় হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এই আটকের মাধ্যমে বড় ধরনের নাশকতা থেকে রক্ষা পেল দেশ। এদের বিরুদ্ধে এখন বিভিন্ন আইনে মামলা দায়ের ও তাদের রিমান্ডের আবেদন করা হবে।
শনিবার ২৭শে আগস্ট,২০১৬ ইং/১২ই ভাদ্র, ১৪২৩ বঙ্গাব্দ