বুধবার  ২৫শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং  |   বুধবার  ১২ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

এইমাএ পাওয়া

টানা বর্ষনে বিপর্দস্ত যশোরের যনজীবন

আগস্ট ১১, ২০১৬

যশোরের যনজীবন

এ এম রাকিব/ 

২৪ ঘণ্টার টানা বর্ষণে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে যশোরের জনজীবন। তলিয়ে গেছে শহরের নিম্নাঞ্চল। অনেক রাস্তায় হাঁটুপানি জমেছে। কোথাও কোথাও বাসাবাড়িতে ঢুকে পড়েছে পানি। ভেসে গেছে মাছের ঘের। কোটি টাকা লোকসানে মাথায় হাত ঘের মালিকদের।

যশোরের বিমান বাহিনীর আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার রাত থেকে বৃষ্টিপাত শুরু হয়। বুধবার দিনভর এ বৃষ্টি হয়েছে। এদিন বিকেল ৫টা পর্যন্ত ২২৫ মিলি মিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে বলে জানান ওই আবহাওয়া অফিসের এক কর্মকর্তা।

এদিকে বিরতিহীনভাবে ভারি বৃষ্টিপাত হওয়ায় বিপাকে পড়েছেন মানুষ। ঘর থেকে রের হতে পারেনি অনেকেই। খোলা হয়নি শহরের অধিকাংশ দোকানপাট। প্রবল বৃষ্টিতে ডুবে গেছে শহরের বেশিরভাগ এলাকা। বিশেষ করে শহরের দক্ষিণাংশ শংকরপুর, বেজপাড়া এবং পশ্চিমাংশ খড়কি- কারবালা এলাকার বিভিন্ন এবং চৌগাছার বিভিন্ন এলাকা হাজারো বাড়িতে পানি ঢুকে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। শহরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, হাঁটু সমান পানির নিচে শংকরপুর, বেজপাড়া,চোপদারপাড়া, কারবালা, কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনাল, খড়কি,চোরমারাদীঘিরপাড়সহ বিভিন্ন এলাকা।ড্রেনেজ ব্যবস্থা ভালো না থাকায় পানি বের হতে পারেনি। শহরের এমএম কলেজ মাঠে জমেছে হাঁটু পানি। সেখানে জাল ফেলে অনেককে মাছ ধরতে দেখা যায়।

শহরের বাগমারাপাড়ার বাসিন্দা প্রণব দাস জানান, তাদের এলাকার লোকজন পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। তার নিজের ঘরেই হাঁটু পানি। এদিকে অতিবর্ষণে ভেসে গেছে জেলার অধিকাংশ মাছের ঘের।

চৌগাছায় নিয়ামতপুর গ্রামের শান্তি ইসলাম বলেন, তার মাছের ঘের ভেসে গেছে। শুধু ঘের নয়, এলাকার মাঠের পর মাঠ আউশের ক্ষেতে পানি থৈ থৈকরছে। এতে প্রায় কোটি টাকার মাছ নদীতে বিলীন হয়ে গেছে এতে মাথায় হাত পড়েছে মাছ চাষীদের এবং আউশ ধান চাষীদের।
যশোর প্রতিনিধি/ ১১ই আগস্ট, ২০১৬ ইং