বৃহস্পতিবার  ২৮শে জুন, ২০১৭ ইং  |   বৃহস্পতিবার  ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

এইমাএ পাওয়া

গোপালগঞ্জ-কালিয়া-খুলনা সড়কের বেহাল অবস্থা,খানা খন্দকে পরিপুর্ন,জনদুর্ভোগ চরমে : প্রশাসনের নজর নেই

সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৬

সড়কের বেহাল অবস্থা

।।এম শিমুল খান / গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি ।।

দীর্ঘ দিন যাবত গোপালগঞ্জ-কালিয়া-খুলনা সড়কটি খানা খন্দকে পরিপুর্ন হয়েছে, ফলে জনদুর্ভোগ চরমে পৌছেছে। কয়েক দিনের অবিরাম বর্ষনে সড়কের দুই পার্শের অনেক স্থান ধ্বসে গেছে। সড়কটির বহু স্থানে পুকুরের মত বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। প্রতিদিন বাস, ট্রাক, টেম্পো, লেগুনা, ভ্যান, মটর সাইকেলসহ অন্যান্য যানবাহন চলাচল করায় সড়ক ও সড়কের দুই পার্শে কাঁচা কাদায় পরিনত হয়েছে। এ সব যানবাহন ও পরিবহন চলাচলে ঝুঁকি বেড়েছে। প্রায় এক বছর আগে থেকেই সড়কটির অবস্থা বেগতিক হয়ে যায়। এরপর থেকে সড়কটি পর্যায়ক্রমে ভাঙ্গতে থাকে। সড়কে অসংখ্য বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টির পানি এ সব গর্তে বেধে গিয়ে আরো অনেক বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। সে সব গর্তের মধ্যে বাস, ট্রাক বা চলাচলকারি অন্য কোন যানবাহনের চাকা পড়লে আরো বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

অপরদিকে ভঙ্গুর এ সড়কে পরিবহন বিশেষ করে বাস, টেম্পু, লেগুনা এবং বাস, টেম্পু, লেগুনার যাত্রী সাধারনের ভোগান্তির অন্ত নেই। হেলে দুলে জীবনের চরম ঝুঁকি নিয়ে যাত্রী সাধারন প্রতিনিয়ত যাতায়াত করছে। আর এ সড়কে একের পর এক দুর্ঘটনা ঘটেই চলছে। আর এর যেন কোন প্রতিকার নেই। গোপালগঞ্জ-কালিয়া-খুলনা সড়কটি একটি ব্যস্ততম সড়ক। প্রতিদিন এ সড়ক দিয়ে গোপালগঞ্জ, খুলনা, নড়াইল, বাগেরহাট জেলার শত শত মানুষ নিত্য প্রয়োজনীয় কাজে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যাতায়াত করছে। এ সড়কে দুর্ঘটনায় পতিত হয়ে অনেকে পঙ্গুত্ব বরন করে জীবনের সব চাওয়া শেষ করে ফেলেছে।

এলাকাবাসী ও ওই সড়কে যাতায়াতকারীরা জানান, গোপালগঞ্জ-কালিয়া-খুলনা সড়কের পাশ দিয়ে রয়েছে কয়েকটি খাল ও পুকুর। এ সব স্থানে সড়কের দুই পাশের কাচা অংশ ধ্বসে গেছে। ফলে বাস, ট্রাক, টেম্পো, লেগুনাসহ সকল প্রকার যানবাহন ও পরিবহন পাশ কাটাতে গেলেই মারাত্বক ঝুঁকির মধ্যে পড়তে হয়।

এ সড়কের সকল স্থানে চলাচল অনুপোযোগি হয়ে পড়েছে। শত শত গর্তের মধ্যে দিয়ে বাস, ট্রাক, টেম্পু, লেগুনা চালকরা তাদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পেশাগত দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে। সাধারন মানুষের শরীরের অপুরনীয় ক্ষতির পাশাপাশি যানবাহন ও পরিবহনগুলোর অপুরনীয় ক্ষতি সাধন হচ্ছে। সড়কের বিভিন্ন স্থানে বাস, ট্রাক, টেম্পু, লেগুনা দেবে গিয়ে অন্যান্য যান ও পরিবহনের ভোগান্তি পোহাতে হয়। তাছাড়া একটি বাস অপর বাসকে পাশ কাটাতে গেলেই রক্ষা নেই, কাঁচা কাঁদায় নামানোর কারনে খাদে পড়ে গিয়ে মারাত্বক দুর্ঘটনা ঘটছে।

সড়কটি পুর্ন নির্মানের লক্ষ্যে টেন্ডার আহবান করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছে ভোগান্তি শিকার যাতায়াতকারি যাত্রী সাধারন ও এলাকাবাসী।

রবিবার ৪ঠা সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ইং