বৃহস্পতিবার  ২৮শে জুন, ২০১৭ ইং  |   বৃহস্পতিবার  ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

এইমাএ পাওয়া

গোপালগঞ্জে স্কুলে মোবাইল ফোন আনতে নিষেধ করায় প্রধান শিক্ষকসহ ৭ শিক্ষককে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ

আগস্ট ১৭, ২০১৬

পিটিয়ে আহত

এম শিমুল খান/গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি/
গোপালগঞ্জে স্কুলে মোবাইল ফোন আনতে নিষেধ করায় প্রধান শিক্ষকসহ সাত শিক্ষককে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে ছাত্র ও তাদের অভিভাবকদের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার সকালে সদর উপজেলার উলপুর পূর্ন চরণ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের ওপর এ হামলা হয়। পরে পুলিশ দুই জনকে আটক করে।

এদিকে, এ ঘটনার প্রতিবাদে স্কুলের শিক্ষার্থীরা দোষীদের শাস্তির দাবিতে মানব বন্ধন করেছে। আহত শিক্ষকদের গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তবে প্রধান শিক্ষক সন্তোষ কুমার বিশ্বাসকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত অন্য শিক্ষককরা হলেন, শামিম সরদার, বনানী রায়, আয়ুব মোল্যা, অর্জুন সরকার, স্বপন বিশ্বাস ও শমশের মোল্যা।

প্রধান শিক্ষক সন্তোষ কুমার বিশ্বাস জানান, স্কুলের নিয়ম ভেঙে নবম শ্রেণির ছাত্র জামিল মিনা গত ১৪ আগস্ট মোবাইল ফোন নিয়ে বিদ্যালয়ে আসে। বিষয়টি তার নজরে এলে তিনি মোবাইল ফোনটি জব্দ করেন। এ সময় জামিল তাকে ঘুষি মারে। এতে অন্য ছাত্ররা জামিলকে মারধর করে তাড়িয়ে দেয়।

এ ঘটনার জের ধরে প্রধান শিক্ষকের ওপর হামলা হতে পারে এমন আশঙ্কায় অন্য শিক্ষকরা মঙ্গলবার প্রধান শিক্ষককে উলপুর বাসস্ট্যান্ডে এগিয়ে আনতে যায়। পথে জামিল ও তার অভিভাবকরা শিক্ষকদের ওপর হামলা করে তাদের মারধর করেন।

এ ব্যাপারে বৌলতলী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের উপ পরিদর্শক (এসআই) মো. ফরিদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় মুসা মিনা (২০) ও আবুল খায়ের মিনা (২০) নামে দুইজনকে আটক করা হয়েছে। তারা উলপুর এম এইচ খান কলেজের ছাত্র।
১৭ই আগস্ট, ২০১৬ ইং