মঙ্গলবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং  |   মঙ্গলবার  ১১ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

এইমাএ পাওয়া

কচুয়ায় গৃহবধূকে কূপিয়ে হত্যা: আটক-৩

আগস্ট ১৪, ২০১৬

গৃহবধূকে কূপিয়ে হত্যা

মাজহারুল ইসলাম অনিক /
চাঁদপুর জেলাধীন কচুয়া উপজেলার গোহাট উত্তর ইউনিয়নের পালগিরী মিয়াজী বাড়ীর প্রবাসী ইউনুছের স্ত্রী জেরিন আক্তার (২৫) কে কৃপিয়ে হত্যা করেছে পার্শ¦বতী বাড়ির দুই যুবক। দুবৃত্তরা হচ্ছে, একই গ্রামের কবির হোসেনের ছেলে শাখাওয়াত হোসেন (১৫) ও উলি উল্যার ছেলে মনির হোসেন (২০)। পুলিশ এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অপরাধে ৩জন কে আটক করেছে।। শনিবার দুপুরে পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (হাজীগুঞ্জ সার্কেল) আব্দুল হানিফ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

সরোজমিন গেলে, নিহত গৃহবধুর শ্বাশুড়ী জোহরা খাতুন ও জা- রুবিনা আক্তার জানান- শুক্রবার রাত অনুমান সাড়ে ১০টর দিকে হঠাৎ চিৎকার শুনে আমরা পাশের ঘর থেকে তার ঘরে গিয়ে দেখি জেরিন রক্তাক্ত অবস্থায় হাউ মাউ করে বলছে-তাদের পূর্ব পাশের বাড়ীর শ্যাম বর্ণের মধ্যে দুটি ছেলে তাকে কুপিয়েছে। সাথে সাথে তাকে স্থানীয় রহিমানগর ডায়গনস্টিক সেন্টারে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করেন। কচুয়া থানার পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থলে এসে জেরিনের লাশ উদ্ধার করে এবং খুনী একই গ্রামের কবির হোসেনের ছেলে শাখাওয়াত হোসেন (১৫) ও উলি উল্যার ছেলে মনির হোসেন (২০) কে গ্রেপ্তার করাসহ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জেরিনের ভাসুর মিজানুর রহমান মাস্টার কে থানায় নিয়ে আটক করে।

ঘটনাস্থলে ছুটে আসা কচুয়া থানার এসআই রহমত উল্যা জানান, জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃত শাখাওয়াত হোসেন দাবি করছে মনির হোসেন জেরিন কে কূপিয়ে হত্যা করেছে। তিনি আরো জানান, ঘটনাস্থল থেকে ৩ টি চোরা ও শাখাওয়াতের এক জোড়া জুতাসহ খুনের বিভিন্ন আলামত জব্দ করা হয়। শনিবার পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (হাজীগুঞ্জ সার্কেল) আব্দুল হানিফ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করতে গেলে আলোকিত বাংলাদেশ প্রতিনিধি কে জানান , আমরা হত্যার রহস্য উদঘাটনের র্জো চেষ্টা করছি। আমরা হত্যার মূল রহস্য অতি শিগ্রই উদঘাটন করতে পারবো।

গৃহবধুর পিতা নোঁয়াব আলী জানান,আমার মেয়ের হত্যার ন্যায় বিচার এলাকাবাসীসহ পুলিশ প্রশাসনের কাছে চাই।
চাঁদপুর প্রতিনিধি/ ১৪ই আগস্ট, ২০১৬ ইং