বৃহস্পতিবার  ২৯শে জুন, ২০১৭ ইং  |   বৃহস্পতিবার  ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

এইমাএ পাওয়া

এলাকায় তোলপাড় :গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে স্কুল ছাত্রীকে বিয়ে করলেন নবনির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান জুয়েল

সেপ্টেম্বর ৩, ২০১৬

বাল্যবিবাহ

।।এম শিমূল খান/গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি।।

গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানী উপজেলার নিজামকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের(ইউপি) নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মোহাব্বত হোসের জুয়েলের বিরুদ্ধে মাত্র ১২ বছর বয়সী এক স্কুল ছাত্রীকে বিয়ে করার অভিযোগ উঠেছে। সপ্তম শ্রেনীতে পড়–য়া ওই ছাত্রীকে বিয়ের ঘটনায় এলাকার সাধারন মানুষের মধ্যে তোলপাড় ও গুঞ্জন সৃষ্টি হয়েছে।

ব্যাপক অনুসন্ধান ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, নিজামকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাব্বত হোসেন জুয়েল একই এলাকার ভ্যান চালক ঠান্ডু কাজির মেয়ে নিজামকান্দি উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেনীতে পড়–য়া মেয়ে আনিরা খানমকে বিয়ে করেন। পরে তা আইনগত স্বীকৃতি দিতে ১৪ আগষ্ট নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে এভিডেভিট করেন।

গতকাল সরেজমিন নিজামকান্দি উচ্চ বিদ্যালয়ে গিয়ে দেথা যায় ভর্তি রেজিষ্টারে ওই ছাত্রী আনিরা খানমের জন্ম তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৪। সে অনুযায়ী বর্তমানে তার বয়স প্রায় ১২ বছর। গত ৯ আগষ্টের পর ওই ছাত্রী আনিরা খানম আর স্কুলে আসেনি বলে জানিয়েছেন নিজামকান্দি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রঞ্জন কুমার মজুমদার।

আনিরা খানমের বাবা ভ্যান চালক ঠান্ডু কাজি মেয়ের বিয়ের কথা অস্বীকার করে বলেন, আমার মেয়ের বিয়ে হয়নী। তবে চেয়ারম্যান মোহাব্বত হোসেন জুয়েলের সাথে বিয়ের কথা হচ্ছে।

এদিকে চেয়ারম্যান মোহাব্বত হোসেন জুয়েলের প্রথম স্ত্রী (এক সন্তানের জননী) ১ সপ্তাহ পুর্বে জুয়েলকে ডিভোর্স দিয়ে তার বাবার বাড়ীতে চলে গেছেন।
শনিবার ৩রা সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ইং