মঙ্গলবার  ১৭ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং  |   মঙ্গলবার  ২রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

এইমাএ পাওয়া

অবরোধের খবরটি ‘গুজব’- চবি ছাত্রলীগ

সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৬

অবরোধের খবর

।।সাফাত জামিল শুভ/ চবি প্রতিনিধি।।

৯৩ কোটি টাকার টেন্ডার নিয়ে আগামীকাল ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস অবরোধের ডাক দিয়েছে ছাত্রলীগের একাংশ- সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত এমন খবরকে সম্পূর্ণরূপে ভিত্তিহীন বলে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে চবি ছাত্রলীগ। নবগঠিত কমিটির দপ্তর সম্পাদক রায়হান মাহমুদ শুভ সাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, চবি ছাত্রলীগ সভাপতি মোহাম্মদ আলমগীর টিপু এবং সাধারণ সম্পাদক এইচ এম ফজলে রাব্বী সুজন এর নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ। ছাত্রলীগের একাংশ টেন্ডারপ্রক্রিয়ার সাথে জড়িত থাকার যে সংবাদ প্রচার করা হচ্ছে তা সম্পূর্ণরূপে গুজব মাত্র এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক কোন অবরোধ আরোপ করা হয়নি। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এর ব্যানারে যে কোন ধরণের কর্মসূচী ঘোষণাসহ সকল সিদ্ধান্ত গ্রহণ করার এখতিয়ার একমাত্র সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক মহোদয়ের এবং যে কোন বিজ্ঞপ্তি বা ঘোষণা বা সিদ্ধান্ত প্রকাশের দায়িত্ব দপ্তর সম্পাদক এর। এই বাইরে নেওয়া যে কোন সিদ্ধান্ত/ঘোষণা/বিজ্ঞপ্তি সম্পূর্ণরূপে অবৈধ এবং সংগঠন পরিপন্থী।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, স্বার্থসিদ্ধির জন্য এবং টেন্ডারপ্রক্রিয়ায় পথ সুগম করার লক্ষ্যে একটি মহল ছাত্রলীগ সম্পর্কে কুৎসা রটনা করা হচ্ছে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এর সাম্প্রতিক, শিক্ষার্থী বান্ধব কর্মকাণ্ডে ও অপরাধীদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করায় তারা ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে কুৎসা রটাচ্ছে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এসকল মুখোসধারিদের প্রতি সর্বোচ্চ হুঁশিয়ারি জানাচ্ছে। ছাত্রলীগের কেউ বা ছাত্রলীগের নাম ভাঙিয়ে কেউ যদি টেন্ডারবাজির সাথে জড়িত থাকে তবে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার পাশাপাশি আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিকট সোপর্দ করা হবে এবং পরবর্তীতে ছাত্রলীগের কেউ টেন্ডারপ্রক্রিয়ার সাথে জড়িত কিনা তা সার্বক্ষণিক মনিটরিং করা হবে। পাশাপাশি কেউ যদি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক মহোদয়ের বাইরে গিয়ে অবৈধ কোন কর্মসূচী ঘোষনা দিয়ে বিভ্রান্তি তৈরি করার চেষ্টা করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

চবি ছাত্রলীগ সভাপতি মোহাম্মদ আলমগীর টিপু মুঠোফোনে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কেউই টেন্ডারপ্রক্রিয়ার সাথে জড়িত নয়। যারা টেন্ডারপ্রক্রিয়ার নাম করে অবরোধের ডাক দিয়ে শিক্ষার সুষ্ঠ পরিবেশ বিনষ্ট করছে তারাই মূলত টেন্ডারপ্রক্রিয়ার সাথে জড়িত।

রবিবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ইং