সোমবার  ২১শে আগস্ট, ২০১৭ ইং  |   সোমবার  ৬ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

এইমাএ পাওয়া

সাফল্যের সিমানায় বসিরহাট থানার IC-দেবাশিষ চক্রবর্তি

জুলাই ১৮, ২০১৬

বসিরহাট থানা

বিশ্বজিৎ দেবনাথঃ বাংলাদেশ সিমান্ত লাগোয়া বসিরহাট।তাই দুর্নিতি নিত্যসঙ্গি।গোরুপাচার,নারিপাচার, সোনাপাচার, বাইকপাচার এসব পাচারকারি দের কাছে মামুলি ব্যাপার।ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তর ২৪ পরগণা জেলার বসিরহাট অঞ্চলে থানা থাকলেও সেটা ছিলো পাচারকারি দের হাতের মুঠোয়।তাই বসিরহাট বর্ডার দিয়েই যতো দুইনম্বরি কারবার ছিলো তা চলতো রমরমিয়ে।বর্ডার পার্শ্ববর্তি অঞ্চলে রাতারাতি বড়ো ধরনের দালান গজিয়েছে অনেক।টাকারতো অভাব নেই।পুলিশ সব জেনেও চুপচাপ। বদলিও হোলো অনেক অফিসার । কাজ কিছুই হয়নি।

বর্তমানে আনা হোলো দেবাশিষ বাবুকে।এবং একেরপর এক রেড করে সমাজবিরোধি দের শাস্তি দিচ্ছেন। সেরকম আজও ভোরে গোপন সুত্রে খবর পেয়ে মাটিয়া এলাকায় বিশেষ অভিযান চালায় বসিরহাট থানার পুলিশ।আটক করা হয় আব্দুল বাকি মন্ডল কে।তার কাছ থেকে উদ্ধার হয় তিরিশ কিলো নিষিদ্ধ গাঁজা। যার বাজার মূল্য প্রায় ৪০,০০০ টাকা।

বাকি মন্ডল ২০০৫ সালে দিল্লি পুলিশের হাতে ধরা পড়েছিল। পাকিস্থানী উগ্রপন্থী দের গোপনে বসিরহাট সীমান্ত দিয়ে ভারতে ঢোকানোর অপরাধে। বাকি মন্ডল “হিজবুল মুজাহিদিন” নামক পাকিস্থানী জঙ্গী সংগঠনের সাথে সরাসরি যুক্ত ছিলো।২০০৫সালে অযোধ্যা বোমা বিস্ফোরন মামলায় আব্দুল বাকি মন্ডলের যাবজ্জীবন সাজা হয়।তিহার জেলে সাত বছর কাটানোর পর দিল্লী হাইকোর্ট থেকে জামিন পায় বাকি মন্ডল ।

বাকি মন্ডলের গ্রেফতার বসিরহাট থানার এক বড় সাফল্য বলে মনে করছে জেলা পুলিশের শীর্ষকর্তা ভাস্কর বাবু।তিনি এও জানান দেবাশিষ সৎ পুলিশ অফিসার ।তার কর্ম প্রচেস্টায় আজ বসিরহাট এলাকা কিছুটা দুর্নিতিমুক্ত ।বসিরহাট অঞ্চলের এক পুরাতন বাসিন্দা অশোক নাগ বাবু বলেন, IC-দেবাশিষ বাবু ভালো কাজ করছেন, তাকে আরো ভালো কাজ করতে হবে।মদ, জুয়ো,গাঁজার ঠেক বন্ধ করতে হবে।বসিরহাটের সমস্ত সমাজ বিরোধি দের কোঠিন সাজা দিতে হবে।যাতে তারা গুন্ডামি,খুন করতে নাপারে। নারি সুরক্ষার কথাও তাকে ভাবতে হবে। তবেই বসিরহাট স্বচ্ছ সুন্দর হবে।

কলকাতা/ ১৮ই জুলাই, ২০১৬ ইং