বুধবার  ২৬শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং  |   বুধবার  ১৩ই বৈশাখ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

এইমাএ পাওয়া

শিবগঞ্জে এক নারীকে কুপিয়ে হত্যাঃঘাতক গ্রেফতার

অক্টোবর ৮, ২০১৬

গ্রেফতার

।।রিপন আলি রকি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ।।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার ধাইনগর ইউনিয়নের চৈতন্যপুর গ্রামে সাবেক স্বামীর ধারাল অস্ত্রের আঘাতে ফারজানা খাতুন সীমা নামের এক নারী নিহত হয়েছে। শুক্রবার গভীর রাতে তাকে ঘুমন্ত অবস্থায় কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এঘটনায় ঘাতক সুমন আলী (২৫)কে আটক করেছে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ। এসময় সীমাকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে মা দেলোয়ারা বেগম(৫০) ও ভাই কামরুল ইসলাম(২০) গুরুতর আহত হয়। এর মধ্যে দেলোয়ারা বেগমের অবস্থা সংকটাপন্ন। রাতেই তাঁদের রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শিবগঞ্জ পুলিশের এসআই কামরুজ্জামান জানান, ২০১২ সালে চৈতন্যপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের মেয়ে সীমার সঙ্গে একই গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে সুমনের বিয়ে হয়। এরপর পারিবারিক কলহের জের ধরে ২০১৫ সালের তাদের বিয়ে বিচ্ছেদ হয়ে যায়। বিয়ে বিচ্ছেদের থেকে সীমা তাদের আড়াই বছরের শিশু সন্তান নিয়ে পিতার বাড়িতে বাসবাস করছিল। শুক্রবার রাতে ধারালো অস্ত্র নিয়ে সুমন সীমাদের বাড়িতে ঢুকে তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে। এসময় তার চিৎকারে সীমার মা ও ভাই ছুটে আসলে তারা ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত হয়। এঘটনার পর স্থানীয়রা সুমনকে আটক করে পুলিশে সোপার্দ করে। পুলিশ সীমার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠায়। এঘটনায় সীমার ভাই কামরুল ইসলাম বাদি হয়ে শিবগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। নিহতের পরিবারের অভিযোগ, বিবাহ বিচ্ছেদের পর থেকে মাঝে মাঝে ঝামেলা করত সুমন। এই ঘটনার কয়েকদিন আগেও সে হুমকি দিয়েছিল। তবে, স্থানীয় অপর সূত্র জানায়, শিশুটিকে মাঝে মাঝে দেখতে যাওয়া নিয়ে কলহের সৃষ্টি হয়। পুলিশ ঘটনাটির তদন্ত শুরু করেছে।

শনিবার  ৮ই অক্টোবর, ২০১৬ ইং