শনিবার  ২৯শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং  |   শনিবার  ১৬ই বৈশাখ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

এইমাএ পাওয়া

রাজাপুর ডিগ্রি কলজেরে সৌন্দয্যূ নষ্ট করার অভযিোগ

সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৬

সৌন্দয্যূ নষ্ট করার অভযিোগ

।।সুর্তীথ বড়াল / ঝলকাঠি প্রতিনিধি।।

ঝালকাঠরি রাজাপুর ডগ্রিি কলজেে সবুজ বষ্টেনী গড়ার লক্ষ্যে গত বছর থকেে ফলজ ও ঔষধী গাছরে চারা রোপন শুরু করা হয়। গাছরে চারাগুলো কলজেরে পরবিশেকে সৌর্ন্দয মন্ডতি করে তোল।ে কন্তিু এই সব সৌর্ন্দয ম্লান করে দচ্ছিে স্থানীয় কয়জেন ব্যক্ত।ি

কলজে ছুটরি পড়ে বকিলেে গরু ছাগল ঢুকয়িে গাছরে চারাগুলোকে নষ্ট করা হচ্ছ।ে কলজে র্কতৃপক্ষ মূল ফটকইে গরু ছাগল প্রবশে করানো নষিধে লখিে বড় একটি সাইনর্বোড ঝুলানো সত্ত্বওে মানা হচ্ছনো নর্দিশেনা।

কলজেরে শক্ষিকরা অভযিোগ করনে, কয়কেজন ব্যক্তি কলজে ছুটি হওয়ার পরপরই নজিদেরে পালতি গরু ও ছাগল মূল ফটক দয়িে ঢুকয়িে দয়ে। গরু ছাগল কলজেরে সৌর্ন্দয বৃদ্ধরি জন্য রোপতি ফলজ ও ঔষধী গাছরে চারা খয়েে ফলেছ।ে এতে নষ্ট হচ্ছে পরবিশে এবং ম্লান হয়ে যাচ্ছে কলজে র্কতৃপক্ষরে সবুজ বষ্টেনী গড়ার প্রকল্প।

নাম প্রকাশে অনচ্ছিুক কলজেরে এক শক্ষিক বলনে, বশে কছিু দনিধরে গরু ছাগলে ৩০টি নাড়কিলে গাছ, ২০টি অন্যান্য ফলরে গাছ এবং ১০টি ঔষধী গাছরে চারা নষ্ট করে দয়িে গরু ও ছাগল।ে

এ ব্যাপারে এই পশুর মালকিদরে বারণ করা হলে উল্টে তারা শক্ষিক ও র্কমচারীদরে নানা ভয়ভীতি দখোয়।

কলজেরে অধ্যক্ষ গোলাম বারি বলনে, কলজেরে ভতেরে যাতে গরু ছাগল ঢুকতে না পারে সজেন্য মূল ফটকরে সামনইে একটি সাইনর্বোড ঝুলয়িে দওেয়া হয়। কন্তিু পশুর মালকিরা কোন নর্দিশেনাই মানছনো। তারা জোর করে গরু ছাগল ঢুকয়িে কলজেরে ভতের রোপতি ফলজ ও ঔষধী গাছগুলো নষ্ট করছ।ে

অধ্যক্ষ বলনে, উপজলো আইন-শৃঙ্খলা কমটিরি সভায়ও বষিয়টি উত্থাপন করছে,ি কন্তিু কোন ব্যবস্থা নওেয়া হচ্ছনো। এখন তারা কলজেরে নামে অপপ্রচার করে যাচ্ছ,ে ‘কলজেে গরু ছাগল ঢুকলে আর পাওয়া যায়না।’

এসব মথ্যিা প্রপাগান্ডা রটয়িে কলজেরে ভাবর্মূতি নষ্টকারীদরে বচিার দবি করছ।ি
বৃহস্পতিবার ৮ই সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ইং