মঙ্গলবার  ১৭ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং  |   মঙ্গলবার  ২রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

এইমাএ পাওয়া

বেইজিংয়ে নতুন প্রযুক্তির অভিনব বাস প্রদর্শিতঃ ‘ট্রানজিট এক্সপ্লোর বাস’

মে ২৯, ২০১৬

chinese-straddling-bus-china

সম্প্রতি যানজটের সমস্যা সমাধানে এগিয়ে এসেছে চীনের একটি কোম্পানি। তারা এমন একটি অভিনব বাস তৈরি করছে, যা রাস্তার যানজট সহজেই অতিক্রম করে গন্তব্যে এগিয়ে যেতে পারবে।

এ মাসের শুরুতে বেইজিংয়ে অনুষ্ঠিত ১৯তম আন্তর্জাতিক প্রযুক্তি প্রদর্শনীতে নতুন প্রযুক্তির অভিনব বাসটি প্রদর্শিত হয়। এর নাম দেওয়া হয়েছে ‘ট্রানজিট এক্সপ্লোর বাস’।

এ বাসের জন্য রাস্তায় রেললাইনের মতো সমান্তরালভাবে পেতে রাখা ধাতব পাত থাকবে। কিছুটা ওল্টানো ইংরেজি ‘ইউ’ অক্ষরের আকৃতির এ বাস হবে বেশ উঁচু। এটি অনেকটা মানুষের মতো ‘দুই পায়ের’ ওপর ভর করে পাতের ওপর দিয়ে মসৃণভাবে চলবে।

রাস্তার যানজটে আটকা পড়ে থাকা সারি সারি যান পড়ে থাকবে এর পেটের নিচে। এই বাসের গতি হবে ঘণ্টায় ৬০ কিলোমিটার পর্যন্ত।

বাসটির মূল নকশাকার হচ্ছেন চীনের সঙ ইউজুহ। তিনিই এই প্রকল্পের প্রধান প্রকৌশলী। গত ছয় বছর ধরে এর নকশা নিয়ে কাজ করছেন সঙ ইউজুহ। চীনের সরকারি বার্তা সংস্থা সিনহুয়াকে তিনি বলেন, ‘সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে, এই বাস রাস্তার প্রচুর জায়গা বাঁচিয়ে দেবে। এতে একসঙ্গে ১ হাজার ৪০০ যাত্রী পরিবহন করা যাবে।

এর কাঠামো তৈরি করতেও পাতাল রেলের তুলনায় অনেক কম খরচ পড়বে। এ ধরনের একটি বাস প্রচলিত ধরনের ৪০টি বাসের সমান যাত্রী পরিবহন করতে পারবে।

সম্পূর্ণ নতুন ধরনের এই বাস তৈরির পরিকল্পনা করা হচ্ছে দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির ও যানজটবহুল বেইজিং ও সাংহাইয়ের মতো নগরের কথা মাথায় রেখেই। বিশেষ করে চীনের রাজধানী বেইজিং-সংলগ্ন মহাসড়কে মাঝেমধ্যে এমন যানজট তৈরি হয়, যা ১০০ কিলোমিটার ছাড়িয়ে যায়।

২০০৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রকে পেছনে ফেলে বিশ্বের বৃহত্তম গাড়ি উৎপাদনকারী দেশ হয় চীন। এর পর থেকে দেশটিতে যানজট তীব্র আকার ধারণ করেছে।

আগামী বছর বেইজিংয়ের ৩০০ কিলোমিটার পূর্বের উপকূলীয় শহর ছিনহোয়াংতাওয়ের রাস্তায় নতুন ধরনের বাসগুলো পরীক্ষামূলকভাবে নামানো হবে।

চীনে এই প্রকল্পটি ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। তবে চিন্তার বিষয় একটাই: ২০১০ সালে প্রায় একই মডেলের একটি গাড়ির পরিকল্পনা উপস্থাপন করা হয়েছিল। পরে তা আর বাস্তবায়িত হয়নি।

সূত্র – এএফপি।

ই বাংলা পত্রিকা/ আন্তর্জাতিক/ প্রযুক্তি ও বিজ্ঞান ডেস্ক – ০৫/২৯/২০১৬