শনিবার  ২৪শে জুন, ২০১৭ ইং  |   শনিবার  ১০ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

এইমাএ পাওয়া

চুনারুঘাটে বিদ্যুতের ভেলকিবাজি- ডিজিএম বললেন প্রতিদিন দু’ঘন্টা লোডশেডিং

সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৬

বিদ্যুৎ বিভ্রাট

।।চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি ॥ 

বিদ্যুতের ভেলকিবাজিতে নাখাল চুনারুঘাটবাসী। অতিরিক্ত লোডশেডিং ও সংযোগ বানিজ্যে অতিষ্ঠ সাধারন গ্রাহকরা।

চুনারুঘাট বিদ্যুৎ অফিসের ডিজিএম শওকাতুল আলম বললেন প্রতিদিন সন্ধার পর দু’ঘন্টা লোডশেডিং হবেই। বিদ্যুৎ উৎপাদন কম ও ব্যবহার বেড়ে যাওয়ায় লোডশেডিং কারন বলে জানান তিনি।

তবে জিএম সোলায়মান মিয়া বলেন চাহিদা ৬২ শতাংসের পরিবর্তে ৪২/৪৩ শতাংস উৎপাদন হচ্ছে। ফলে সব স্থানে সামান্য সময় লোডশেডিং হলেও বেশীদিন তা থাকবে না।

এদিকে সামনে ঈদুল আযহা ও জে এস সি, এস.এস.সি পরীক্ষা শুরু হবে। শিক্ষার্থীদের পড়ার সময় সন্ধা থেকে ১০টা পর্যন্ত বিবেচনা করে লোডশেডিং করার দাবী জানান গ্রাহকরা।

আমুরোড বাজারের ব্যবসায়ী বেলাল জানান সন্ধার পর বিদ্যুৎ না-থাকলে কেনা-বেচা ভাল হয় না তাতে ব্যবসার লোকশান শুনতে হচ্ছে। অচিরেই বিদ্যুতের ভেলকিবাজি বন্ধকরে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে এটাই সাধারন গ্রাহকের দাবী।

এদিকে চুনারুঘাট পল্লীবিদ্যুৎ অফিসের কর্মকর্তারা সংযোগ প্রদান অনিয়ম ও দুর্নিতি করে যাচ্ছেন। গতকাল ছয়শ্রী গ্রামের শাফিয়া খাতুন অভিযোগ করে বলেন আসলাম নামে এক কর্মকর্তা সংযোগ বাবদ তার কাছে ১০ হাজার টাকা দাবী করেন। তিনি টাকা না দেয়ায় তার ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ না দিয়ে অভার লোড লেখে দেন কিন্তু তার পার্শেও ঘরের রহমত আলীর সংযোগদিতে অসুবিধা হয়নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন কর্মকর্তা বলেন চুনারুঘাটের ডিজি এম, এজি এম ও ইন্সপেক্ট্রর মিলে একটি সেন্ডিকেট তৈরীর মাধ্যমে সংযোগ প্রদান চলছে। যা উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষে নজর দেয়া প্রয়োজন।
মঙ্গলবার৬ই সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ইং